ডার্বির পর সংঘর্ষে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ইস্টবেঙ্গল সমর্থক।বাড়িয়ে দিন সাহায্যের হাত।


বেঙ্গল ফুটবল নিউজ ডেস্ক২৪ জুলাই, ২০১৮

          ১৯ তারিখ আই এফ এ শিল্ডের ফাইনাল ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল বাংলার দুই চির প্রতিদ্বন্দ্বী ইস্ট-মোহন। এই দুই চির প্রতিদ্বন্দ্বীর ম্যাচে প্রায়ই উত্তপ্ত থাকে ময়দান। অনেক সময় অবস্থা এতোটাই খারাপের দিকে গড়িয়ে যায় যে সংঘর্ষও বেঁধে যায় দুই দলের সমর্থকদের মধ্যে। আই এফ এ শিল্ড এর ফাইনালের দিনও ঘটলো সেই একই ঘটনা। সংঘর্ষের দরুন এবার আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হলো এক লাল হলুদ সমর্থক অনির্বাণ কংসবণিককে।

           আই এফ এ শিল্ড ফাইনালের পর লাল হলুদের জয়ে আনন্দিত অনির্বাণ এবং আরেক লাল হলুদ সমর্থক অর্পণ এদিন ট্রেনে উঠেছিলেন বাড়ি ফেরার জন্য। ট্রেন ছাড়ার মুহূর্তে গেটের কাছাকাছিই দাড়িয়েছিলেন তারা দুজন। সেখানে হঠাৎ-ই তাদের লক্ষ্য করে ইট ছুঁড়ে মারে কিছু দুষ্কৃতি। তার জেরেই মাথায় সরাসরি আঘাত পান অনির্বাণ। বড়ো সড়ো চোট না পেলেও চোখের কাছাকাছি জায়গায় চোট পান লাল হ্লুদের আরেক সমর্থক অর্পণও। তবে বেশি চোট পাওয়ার দরুন শেষ অবধি মধ্যমগ্রাম স্টেশনে অনির্বাণকে নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে। সেখানে মাথায় ৫ টি সেলাইয়ের পর বাড়ি ফিরে যান অনর্বাণ।


             কিন্তু এরপর হঠাৎ-ই কাল অবস্থার অবনতি ঘটে অনির্বাণের। এরপর চটজলদি অনির্বাণকে নিয়ে যাওয়া হয় তোপসিয়ার কাছাকাছি একটি বেসরকারি হাসপাতালে। আপাতত সেখানেই আই সি ইউ-তে ভর্তি রয়েছেন অনির্বাণ।

            অনির্বাণের বাবা জানিয়েছেন যে, ডাক্তারা বলেছেন অনির্বাণের মাথার হাড় আঘাতের দরুন ভেঙ্গে গিয়েছে  এছাড়াও রক্ত জমে রয়েছে অনির্বাণের মাথায়।  বিপত্তি এড়ানোর জন্য সেই ব্লাড ক্লথ বেড় করে নিয়ে আসার চেষ্টায় রয়েছেন চিকিৎসকরা। কিন্তু এরজন্য যে পরিমাণ টাকা দরকার তা নিয়েই উৎকন্ঠায় রয়েছে অনির্বাণের পরিবারবর্গ। অনির্বাণদের আর্থিক অবস্থা তেমন স্বচ্ছল না হওয়ায় টাকা জোগাড় নিয়ে দুশ্চিন্তায় তাঁর বাড়ির সবাই। কিন্তু শেষ অবধি কিছুটা স্বস্তির নিশ্বাস দিয়ে অনির্বাণের পাশে লাল হলুদ শিবিরকে দাড়ানোর জন্য বলেছেন লাল হলুদেরই এক কর্তা। হয়তো আজই ক্লাবের পক্ষ থেকে ক্লাব কর্তারা যাবেন অনির্বাণের নিকট।


            বাংলার চির প্রিয় ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে এহেন সংঘর্ষ কোনোমতেই কাম্য নয়। যে দুষ্কৃতিরা এই কান্ড ঘটিয়েছে তারা আর যাই হোক না কেনো, কোনো দলের সমর্থক হতে পারেনা। এরা ময়দানে যায় বাংলার ফুটবলকে আরও কালিমালিপ্ত করতে। এরা ফুটবল প্রেমী নয় বরং এরা দুষ্কৃতি।

           অনির্বাণের এই সময়ে তার পাশে থাকতে আমরা বেঙ্গল ফুটবল বদ্ধপরিকর। কোনো স্বহৃদয় ফুটবল প্রেমি যদি আর্থিক সাহায্যের জন্য অনির্বাণের পরিবারের পাশে দাড়াতে চান, তার জন্য রইলো অনির্বাণের বাবার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট নম্বর।


Name - DWIJEN KANGSABANIK

Bank Name - STATE BANK OF INDIA

Bank Account No - 11341177672

Branch Name - GHOSH PARA (002061)

Branch IFSC - SBIN0002061

No comments