ইস্টবেঙ্গল - কোয়েস সম্পর্ক ছিন্ন এখনই নয়। জানালেন কোয়েস কর্তা৷


বেঙ্গল ফুটবল নিউজ ডেস্ক, ১৯ মার্চ,২০১৯

সুপার কাপ-কে কেন্দ্র করে কোয়েস ইস্টবেঙ্গল সম্পর্কে ইতিমধ্যেই ফাটল দেখা দিয়েছে। সুপার কাপ নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য কাল এক মিটিং-এর আয়োজন করেছিলেন ইস্টবেঙ্গল ক্লাব কর্তারা। সেই মিটিং-এ কোয়েস কর্তা অজিত আইজ্যাককে যোগদানের জন্য অনুরোধ করা হলেও কোনো এক অজ্ঞাত কারণে তিনি এই মিটিং-এ হাজির হননি এবং তাঁর কোনো প্রতিনিধিকেও পাঠাননি লাল হলুদ তাঁবুতে।




প্রসঙ্গত, সুপার কাপ নিয়ে এবারে দ্বৈত মত প্রকাশ করেন ইস্টবেঙ্গল ক্লাব কর্তারা এবং কোয়েস কর্তা। তা নিয়েই শুরু হয় মনমালিন্য। এসবের মাঝে ফেডারেশন থেকে ইস্টবেঙ্গলের নিকট সুপার কাপ নিয়ে তাদের অবস্থান সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলে কোয়েস কর্তা অজিত আইজ্যাক নিরুত্তর থেকেছেন। আর তা নিয়েই বিতর্ক ইস্টবেঙ্গল তাঁবুর অন্দরে। এমতাবস্থায় কালকের মিটিং নিয়ে কোয়েস কর্তা অজিত আইজ্যাকের উদাসীন থাকায় বিভিন্ন ফুটবল মহলে জোর আলোচনা শুরু হয় যে ইস্টবেঙ্গল - কোয়েস সম্পর্ক সম্ভবত ছিন্ন হতে চলেছে। ক্লাব কর্তারা সুপার কাপ নিয়ে অজিত আইজ্যাকের নিকট যে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে উত্তর জানতে চেয়েছেন৷ অনেকের মতে সেই ৪৮ ঘন্টাই হলো ইস্টবেঙ্গল কোয়েস সম্পর্কের মেয়াদ। তবে কোয়েস কর্তা অজিত আইজ্যাক নিজেই সম্পর্ক ছিন্ন-র কথা উড়িয়ে দিলেন৷


এই প্রসঙ্গে কোয়েস কর্তা অজিত আইজ্যাক জানান যে, ইস্টবেঙ্গলের চিঠি হাতে পেলে তিনি অবশ্যই তার সদুত্তর দেবেন। কোয়েস ইস্টবেঙ্গলে এসেছে সমস্ত প্রতিযোগিতামূলক টুর্নামেন্ট খেলতে, সেখানে সুপার কাপ খেলতে কোনো সমস্যা নেই কোয়েসের। কিন্তু ফেডারেশনের ভারতীয় ফুটবলকে নিয়ে কি রোডম্যাপ, তা না জেনে কোনো সিদ্ধান্ত নিলে ক্ষতি হতে পারে দলেরই। এছাড়াও তিনি আরও জানান যে, এই মুহূর্তে ইস্টবেঙ্গল কোয়েস সম্পর্ক ছিন্নের কোনো প্রশ্নই আসছেনা। সমস্যার দ্রুত সমাধান হবে বলে আশা রাখছেন কোয়েস কর্তা অজিত আইজ্যাক।

No comments