বাগান কোচ ভিকুনার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে পারে এআইএফএফ। জানতে পড়ুন।


বেঙ্গল ফুটবল নিউজ ডেস্ক,২৫ আগস্ট, ২০১৯

ফাইনালে উঠেও ট্রফি হাতছাড়া হয়ে গেলো কলকাতার মোহনবাগানের। ট্রফি জয়তো হলোইনা, উল্টে বাগান কোচকে ঘিরে শুরু হলো বিতর্ক। সমস্যার সূত্রপাত ডুরান্ড কাপের ফাইনালে গোকুলাম বনাম মোহনবাগান ম্যাচ। এই ডুরান্ড কাপ টুর্নামেন্টে জয় লাভ করলেই নয়া ইতিহাত সৃষ্টি করতো বাগান৷ কিন্তু তা না হয়ে, রেফারির সঙ্গেই বচসায় জড়ালেন বাগান কোচ কিবু ভিকুনা। ফলস্বরূপ তাঁর বিরুদ্ধে এবারে পদক্ষেপ নিতে পারে অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশন।




এর পূর্বেও কলকাতা লিগের ম্যাচে মাথা গরম করতে দেখা গিয়েছে বাগান কোচকে৷ ডুরান্ড কাপের ফাইনালেও দেখা গেলো একই চিত্র। রেফারিং নিয়ে অসন্তুষ্ট বাগান কোচ কিবু ভিকুনা জড়িয়ে পরলেন রেফারি অজিত কুমার মিতেইয়ের সঙ্গে বচসায়। এদিন ম্যাচ চলাকালীনই রেফারির সঙ্গে ঝামেলায় জড়িয়ে পরেন বাগান কোচ। ম্যাচ শেষেও লেগে থাকে তর্কবিতর্ক। ম্যাচের মাঝে একবার কিবু হাত দিয়ে ঠেলে সরিয়েও দেন রেফারি৷ পরে আবার সাংবাদিক সম্মেলনের সময় রেফারির দিকে মেজাজ হারিয়ে তেড়ে যান ভিকুনা৷ আর এখান থেকেই শুরু হয় ঝামেলার সূত্রপাত৷


যদি সাংবাদিক সম্মেলনে এসবের জন্য ম্যাচ রেফারিকেই কাঠগড়ায় দাঁড় করান বাগান কোচ কিবু। তিনি বলেন যে, ম্যাচে খুব বাজে রেফারিং হয়েছে৷ হ্যান্ডবল এবং পেনাল্টি নিয়ে রেফারি অনেক ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তার সঙ্গে ভিকুনার আরও বক্তব্য যে, " আমার সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেছে রেফারি। আমি বলেছিলাম সাংবাদিক সম্মেলনের পূর্বে এসে ক্ষমা চাইতে। কিন্তু রেফারি তা না চাওয়ায় আমাকে মুখ খুলতেই হলো। " বলা বাহুল্য, এদিন ডুরান্ডের ফাইনাল ম্যাচে বারবারই অপ্রীতিকর ঝামেলায় জড়িয়ে পরতে দেখা যায় বাগান কোচ কিবু এবং রেফারিকে৷ ফলস্বরূপ আশঙ্কা করা হচ্ছে যে, বাগান কোচের বিরুদ্ধে কোনো কড়া পদক্ষেপ নিতে পারে ফেডারেশন।

No comments